সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
খুলনায় ঈদ উদযাপনে ১৬ নির্দেশনা

খুলনায় ঈদ উদযাপনে ১৬ নির্দেশনা

সাম্প্রতিক সময়ে মহামারী করােনাভাইরাস (কোভিড-১৯) এর সংক্রমণ ও বিস্তাররােধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এবং ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তি ও নির্দেশনা অনুযায়ী এ বছর পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের জামাত ঈদগাহ বা কোনাে উন্মুক্ত ময়দানে অনুষ্ঠিত হবেনা।
খুলনা জেলার সকল জামে মসজিদে নিম্নোক্ত ১৬ নির্দেশনা অবশ্য অনুসরণপূর্বক ঈদের জামাত আয়ােজন করতে হবে।
আজ শনিবার রাতে খুলনা জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এবং জেলা পর্যায়ে করােনাভাইরাস প্রতিরােধসহ সার্বিক ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ হেলাল হোসেন স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
নির্দেশনাগুলো হলো…

১। ঈদ-উল-ফিতরের প্রথম জামাত খুলনা টাউন জামে মসজিদে সকাল ৮:০০ ঘটিকায় অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় ও তৃতীয় জামাত যথাক্রমে সকাল ৯:০০ ঘটিকা ও ১০:০০ ঘটিকায় অনুষ্ঠিত হবে।

২। কোর্ট জামে মসজিদে সকাল ৮:৩০ ঘটিকায় ঈদ-উল-ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

৩। জেলার সকল জামে মসজিদে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সকাল ৮:০০ টা হতে ১০:০০ টার মধ্যে সুবিধাজনক সময়ে একাধিক জামাত আয়োজন করা যাবে।

৪। প্রতিটি মসজিদের প্রবেশপথে মুসল্লীদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার অথবা সাবান দ্বারা হাত ধােয়ার ব্যবস্থা থাকতে হবে।

৫। ঈদের জামাতে আগত প্রত্যেক মুসল্লী আবশ্যিকভাবে নিজ নিজ বাসা থেকে ওযু করে, মুখে মাস্ক পরিধানপূর্বক নিজস্ব জায়নামাজ নিয়ে মসজিদে উপস্থিত হবেন।

৬। মসজিদে কার্পেট রাখা যাবেনা; সম্পূর্ণ মসজিদ নামাজের পূর্বে জীবাণুনাশক দ্বারা পরিষ্কার করতে হবে।

৭। মুসল্লীগণ মসজিদে সংরক্ষিত জায়নামাজ ও টুপি ব্যবহার করতে পারবেন না।

৮। ঈদের নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব ও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক এক কাতার অন্তর অন্তর কাতার করতে হবে।

৯। শিশু, বয়ােবৃদ্ধ, যে কোনাে অসুস্থ ব্যক্তি এবং অসুস্থদের সেবায় নিয়ােজিত ব্যক্তি ঈদের জামাতে অংশগ্রহণ করতে অনুৎসাহিত করা হলাে।

১০। করােনাভাইরাস সংক্রমণ রােধ নিশ্চিত করতে ঈদের জামাত শেষে পরস্পর কোলাকুলি ও হাত মেলানাে পরিহার করা বাঞ্ছনীয়।

১১। সর্বসাধারণের সুরক্ষা নিশ্চিতকল্পে জেলা/উপজেলা প্রশাসন, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ এবং আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণকারী বাহিনীর নির্দেশনা আবশ্যিকভাবে প্রতিপালন ও অনুসরণ করতে হবে।

১২। স্ব-স্ব মসজিদ কমিটি (ইসলামিক ফাউন্ডেশন উপরােক্ত নির্দেশনা প্রতিপালন নিশ্চিত করবেন।

১৩। ঈদের প্রাক্কালে সকল প্রকার উচ্চশব্দযুক্ত পটকাবাজি নিষিদ্ধ করা হলাে।

১৪। ঈদের ছুটি চলাকালীন বেপরােয়া মােটরসাইকেল চালানাে এবং শালীনতা-বিরােধী সকল কর্মকাণ্ড নিষিদ্ধ করা হলাে।

১৫। ঈদের দিন বা ঈদ-পরবর্তী সময়ে আত্মীয় -স্বজনের বাড়িতে ভ্রমণ থেকে বিরত থেকে স্ব-স্ব গৃহে অবস্থান করতে হবে।

১৬। ঈদের দিন বা ঈদ-পরবর্তী সময়ে দর্শনীয় স্থান বা জনসমাগমস্থল পরিদর্শন থেকে বিরত থাকতে হবে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন জানান, করােনাভাইরাস প্রতিরােধে ‘ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন’ কার্যক্রম বাস্তবায়নে জনস্বার্থে এ আদেশ জারী করা হলাে। আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com