সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি:সহায়তা পাচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি:সহায়তা পাচ্ছে ক্ষতিগ্রস্ত

মো.জাকারিয়া খান জাহিদ, শেরপুর জেলা প্রতিনিধি: শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার নলকড়া ইউনিয়নের গোমড়া এলাকার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঘূর্ণিঝড়ে মানুষের বসতঘরসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে । ২৪মে মধ্যরাতে প্রচন্ড বেগে বয়ে যাওয়া প্রায় ২৫ মিনিটের এ ঝড়ে ওই এলাকার মানুষের বসতঘর, রান্নাঘর, গোয়ালঘরসহ প্রায় ৩২টি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাছাড়া আম,কাঠাল,কলা,ও লিচু বাগানসহ ৫০টির অধিক সবজি ক্ষেতের মাচা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
স্থানীয় হিলফুল ফুজুল শান্তি যুব সংঘের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান গোমড়া ৫ নং ওয়ার্ডে বেশিরভাগ মানুষ কৃষির উপর নির্ভরশীল। তাদের প্রায় প্রত্যেকের সবজি ক্ষেতের মাচা ঘূর্ণিঝড়ে ভেঙ্গে দুমড়ে মুচড়ে ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে।
ক্ষতিগ্রস্ত লেচু বাগানের মালিকরা জানান দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা লেচু ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অগ্রীম টাকা নিয়ে লিচুর বাগন বিক্রি করা হয়েছিলো কিন্তু ঝড়ে বাগন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় ওই ব্যবসায়ীরা তাদের টাকা ফেরতের জন্য চাপ দিচ্ছেন ।
বিধবা মিছিরন বেগমের একমাত্র ঘরটিসহ এলাকার অনেকের ঘর পড়ে যাওয়ায় তারা নতুন ঘর দিতে না পেরে আর্থিক সহায়তা চেয়েছেন।
ওই এলাকার সংরক্ষিত আসনের মহিলা ইউপি সদস্য শেফালী বেগম জানান রাংটিয়া, গোমড়া ও সন্ধাকুড়া এলাকার মধ্যে ৫ নং ওয়ার্ডের গোমড়া গ্রামে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি সাধিত হয়েছে ।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ হুমায়ুন কবির বলেন ঘূর্ণিঝড়ে যাদের ক্ষতি হয়েছে তাদের তালিকা অনুযায়ী কৃষি প্রনণোদনা দেয়ার জন্য সুপারিশ করবো।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ বলেন
ঘুর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা ইতিমধ্যে আমার কাছে এসেছে। সরেজমিনে পরিদর্শন করে সরকারীভাবে সহায়তা দেওয়ার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com