সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
শিরোনামঃ
ঈশ্বরগঞ্জে দুই জনের কারাদন্ড
ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ
কুমারী মেয়ের বিয়ে ভাঙ্গতে গিয়ে জুতাপেটা খেলে আলোচিত কাদির বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ গাজীপুর জেলা শাখার নতুন কমিটি গঠন “আসুন সবুজ বাংলাদেশ গড়ি” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারা বাংলাদেশের ৬৪ জেলায় গাছ লাগানোর এক অদম্য কর্মসূচি শুরু করেছেন ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার-সিলেট জেলার কো-অর্ডিনেটর মুমিনুল হক ফাহিম। উক্ত সামাজিক কর্মসূচির নাম দিয়েছেন “Planting Trees in 64 Districts of Bangladesh”। ডিবি (উত্তর), টাঙ্গাইল কর্তৃক ৭৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ভূঞাপুর থানা মাদ্রাসা ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করল । গাজীপুর শ্রীপুরে প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তির বিষয়ে অনুসন্ধান করতে গিয়ে সাংবাদিক ও ছাত্রলীগ সভাপতি আটক। মাস্ক পরিধান ও সাস্থ্যবিধি পরিপালনে সেচ্ছা অঙ্গিকার অভিযান শ্রীপুরে স্ত্রীর লালসার স্বীকার হয়ে নিঃস্ব স্বামী নবীনগরে পরকীয়ার জেরে তিন সন্তানের জননী প্রবাসীর স্ত্রী উধাও
কিশোরগঞ্জে ১১ জন করোনা আক্রান্ত পুলিশ সদস্যের সবাই সুস্থ

কিশোরগঞ্জে ১১ জন করোনা আক্রান্ত পুলিশ সদস্যের সবাই সুস্থ

 

সূর্য বসাক,
কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

কিশোরগঞ্জে মোট ১১ জন পুলিশ সদস্য কভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছিলেন। তারা সবাই করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়েছেন। সোমবার সর্বশেষ করোনাভাইরাসকে জয় করেছেন ভৈরব থানায় কর্মরত এএসআই ফারুক মিয়া।

কিশোরগঞ্জ জেলা পুলিশের আক্রান্ত ১১ সদস্যের মধ্যে এর আগে ১০ জন সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরে গেছেন। শেষ একজন সুস্থ হওয়ায় এখন কিশোরগঞ্জে আর কোনো পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত নেই। সর্বশেষ করোনাজয়ী এএসআই ফারুক মিয়া সোমবার কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে নিজ বাড়িতে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনায় ছাড়পত্র পেয়েছেন।

কিশোরগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) অনির্বান চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, করোনা প্রতিরোধমূলক দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ভৈরব থানায় কর্মরত এএসআই ফারুক মিয়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। তিনি হঠাৎ হালকা কাশি অনুভব করলে গত ২২ এপ্রিল ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নমুনা সংগ্রহ করে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জনের মাধ্যমে আইপিএইচ-এ পাঠানো হয়। গত ২৪ এপ্রিল তার কোরোনাভাইরাস পজেটিভ রিপোর্ট পাওয়া গেলে তাকে উন্নত চিকিৎসার (আইসোলেশন) জন্য ভৈরব ট্রমা সেন্টারের অধীনে রাখা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় দ্বিতীয় ও তৃতীয়বার পর পর দুটি নমুনা পরীক্ষায় রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দিয়ে তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, জেলায় করোনা আক্রান্ত ১১ পুলিশ সদস্যের মধ্যে দুইজন এসআই, একজন এএসআই ও আটজন কনস্টেবল ছিলেন।

সংবাদটি প্রচার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com