সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
বিজয়ের স্মরণ সভায় ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত অর্ধশত | প্রভাত বার্তা

বিজয়ের স্মরণ সভায় ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত অর্ধশত | প্রভাত বার্তা

সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি,

সাবেক আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, সাবেক স্বরাষ্ট্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং ১৪ দলের সমন্বয়ক প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুর পর আধিপত্য নিয়ে উত্তপ্ত সিরাজগঞ্জ আওয়ামী লীগ। ঘটছে একের পর এক হামলা ও সংঘর্ষ। নাসিমের স্মরণসভায় যাওয়ার পথে হামলায় নিহত হয় ছাত্রলীগ নেতা এনামুল হক বিজয়। আর বিজয়ের স্মরণসভায় ঘটেছে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের কয়েক দফা সংঘর্ষ।

গতকাল মঙ্গলবার বিকালে (৭ জুলাই) সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ নিহত ছাত্রলীগ নেতা এনামুল হক বিজয়ের রুহের মাগফিরাত ও শান্তি কামনায় দোয়া মাহফিল আয়োজন করেন। উক্ত মাহফিলকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ৪০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। ঘটনার জন্য ছাত্রলীগের দু’পক্ষ একে অপরকে দায়ী করছে।

মঙ্গলবার বিকেল ৫ টার দিকে শহরের জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয় সামনে এ সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। ধীরে ধীরে তা পুরো এসএস রোডে ছড়িয়ে পড়ে। টানা দুই ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষ চলাকালে উভয় গ্রুপে অন্যান্য সংগঠনের নেতাকর্মীরাও যুক্ত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দফায় দফায় টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। রাত ৮টা পর্যন্তও শহরের দুটি পয়েন্টে নেতাকর্মীরা অবস্থান নেয়ায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ বিন আহম্মেদ বলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাসসহ শীর্ষ নেতাদের উপস্থিতিতে আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে নিহত এনামুল হক বিজয়ের স্মরণে দোয়া মাহফিল ও স্মরণ সভা চলছিল। এসময় প্রায় দুই শতাধিক লোকজন মিছিল নিয়ে স্মরণ সভাস্থলে এসে হামলা চালায়। আমরা প্রতিরোধ করতে গেলে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষেও বেধে যায়। এ ঘটনায় অন্তত ২০/২৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। ঘটনার নিন্দা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার দাবী করেন তিনি।

এদিকে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আহসান হাবিব খোকা বলেন, প্রায় দেড় শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে দোয়া মাহফিলে যোগ দেয়ার জন্য দলীয় কার্যালয়ের সামনে গেলে আমাদের উপর অতর্কিত হামলা করা হয়। আমরা প্রতিহত করতে গেলে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষে জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল হকসহ অন্তত ১৫/২০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com