সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
ঈশ্বরগঞ্জে কষ্টে দিন পার করছে ব্রহ্মপুত্রের তীব্র ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্থরা

ঈশ্বরগঞ্জে কষ্টে দিন পার করছে ব্রহ্মপুত্রের তীব্র ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্থরা

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
ব্র‏হ্মপুত্র নদের তীব্র ভাঙনের কবলে পড়ে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বেশ কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দারা ভিটে ছাড়া হচ্ছেন। ইতোমধ্যে প্রায় অর্ধশত পরিবার তাদের গৃহ হারিয়েছে। অন্তত ৫০ একর ফসলি জমি বিলিন হয়েছে। প্রতিদিন ভিটে হারাচ্ছে মানুষ।

উচাখিলা ইউনিয়নের মরিচারচর গ্রামের তীব্র ভাঙনের কবলে পড়েছে বাসিন্দারা। ইতোমধ্যে অন্তত ৪০ টি পরিবারের ঘরবাড়ি নদে বিলীন হয়েছে। ঝুঁকির মুখে রয়েছে শতাধীক পরিবার। ভাঙনে অন্তত ৫০ একর বিলিন হয়ে গেছে। নদের ভাঙনের কবল থেকে মরিচারচর গ্রামকে রক্ষার জন্য নদের মূল ধারায় খননের দাবিতে এলাকাবাসী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। কিন্তু এখনও খনন কাজ শুরু হয়নি। কিন্তু নদের অব্যহত ভাঙনে সর্বস্ব হারাচ্ছে মানুষ। বিলিন হয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রতিরক্ষা বাঁধ। ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শনে মঙ্গলবার বিকেলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিনা নাসরিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাকির হোসেন, জেলা পরিষদের প্যানেল মেয়র মমতাজ উদ্দিন, জেলা পরিষদ সদস্য মো. একরাম হোসেন ভুঁইয়া, উচাখিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম প্রমুখ। ওই সময় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে সহায়তার আশ্বাস দেওয়া হয়।

ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাকির হোসেন বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ সহায়তা প্রদানের জন্য জেলা পরিষদের কাছে এলাকাবাসী দাবি জানিয়েছে। এছাড়া প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ত্রিশ কেজি করে চাল ও নগদ অর্থ সহায়তা দেয়া হবে।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com