সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
২৪ ঘন্টার মধ্যে হত্যা মামলার মূল রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকান্ডে জড়িত সকল আসামী গ্রেফতার।

২৪ ঘন্টার মধ্যে হত্যা মামলার মূল রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকান্ডে জড়িত সকল আসামী গ্রেফতার।

পিয়াস নেত্রকোনা জেলা প্রতিনিধিঃ
ইং ১৩/০৭/২০২০ তারিখ ভোর বেলায় নেত্রকোনা সদর থানাধীন কাইলাটি ইউনিয়নের তারাকুড়ি গ্রামে মোছাঃ রহিমা আক্তার এর বসত বাড়ী সংলগ্ন পুকুরে তার মেয়ে নাছিমা আক্তারের মৃতদেহ পানিতে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়। সংবাদ পেয়ে থানার অফিসার ইনচার্জসহ জেলা উধর্বতন অফিসারগণ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। লাশের সুরতহাল প্রস্তুত শেষে ময়না তদন্তের জন্য মৃতদেহ আধুনিক সদর হাসপাতাল, নেত্রকোনায় প্রেরণ করা হয়। পরবর্তীতে ঘটনা তদন্তে পুলিশ সুপার, নেত্রকোনা মহোদয়ের দিক নির্দেশনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) ও সদর সার্কেল, নেত্রকোনা মহোদয়ের সার্বিক তত্বাবধানে থানা পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের সমন্বিত একটি চৌকস টীম ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঐ দিন রাতেই নিহত নাসিমার স্বামী মোঃ হাসান (৩৫) কে চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ এলাকা হতে গ্রেফতার করে এবং নিহত নাসিমার ছোট বোন কমলাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামী মোঃ হাসান ও কমলা হত্যাকান্ডের ঘটনায় নিজেদের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে এবং বিজ্ঞ আদালতে দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। আসামী হাসান ও কমলা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ইং ০৯/০৭/২০২০ তারিখ গভীর রাত্রে ভিকটিম নাছিমাকে ঘুমন্ত অবস্থায় প্রথমে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে এবং লাশ গোপন করার লক্ষ্যে ওড়না ও গামছা দিয়ে নাছিমার হাত, পা, কোমর বাঁশের খুটির সাথে বেঁধে বাড়ীর পাশের পুকুরে ডুবিয়ে রাখে। ঘটনার পর ভোর বেলা আসামী হাছান পালিয়ে যায়। ঘটনার দুই দিন পর ইং ১৩/০৭/২০২০ তারিখ ভোর অনুমান ০৫:৩০ ঘটিকায় পুকুরে ভিকটিম নাছিমার লাশ পাওয়া যায়।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com