সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
শেরপুরে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি ও মূল্য কমানোর দাবিতে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান

শেরপুরে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি ও মূল্য কমানোর দাবিতে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান

শেরপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
করোনায় গৃহবন্দি মানুষের যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে ইন্টারনেট। ঘরে বসেই অনেকে এখন অফিসের কাজ সেরে নিচ্ছেন। ইন্টারনেটের মাধ্যমে চলছে শিক্ষার্থীদের পাঠ কার্যক্রম। এই সময়ে ইন্টারনেট সংযোগ অতি গুরুত্বপূর্ণ। বেড়েছে ব্যান্ডউইথের ব্যবহার। কিন্তু কমেছে ইন্টারনেটের গতি। ইন্টারনেটের গতি কমে যাওয়ায় অফিসের কাজে দেরি, ভিডিও স্ট্রিমিংয়ে দীর্ঘ সময়ের লোডিং, শিক্ষা কার্যক্রমে ব্যাঘাতসহ নানা সমস্যায় পড়তে হচ্ছে ব্যবহারকারীদের। আবার প্রকৃত সেবা না পেলেও ইন্টারনেট প্যাকেজের নির্ধারিত মূল্য ব্যবহারকারীদের ঠিকই গুনতে হচ্ছে। এমন অবস্থায় শেরপুর জেলাসহ সারাদেশে ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি, সকলক্ষেত্রে ইন্টারনেটের ব্যান্ডউইথ বাড়ানো এবং সকল ধরনের ইন্টারনেট পরিষেবার মূল্য কমানোর দাবিতে গণস্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান করেছে নাগরিক প্ল্যাটফরম জনউদ্যোগ শেরপুর কমিটি। (২০ জুলাই) সোমবার সকাল ১১টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত শহরের নিউমার্কেট সাংবাদিক বিপ্লবী রবি নিয়োগী সভাকক্ষে ওই গণস্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান চলে। ওই কর্মসূচির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন জেলার বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী এবং তরুণ ও যুব সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। কর্মসূচি চলাকালে জনউদ্যোগ আহ্বায়ক শিক্ষক আবুল কালাম আজাদের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন শেরপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. আব্দুর রশীদ, শহর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ দত্ত, জেলা জাসদ সভাপতি মনিরুল ইসলাম লিটন, সমাজকর্মী রাজিয়া সামাদ ডালিয়া, জেলা উদীচী সভাপতি তপন সারোয়ার, শিক্ষাবিদ-সংস্কৃতি সংগঠক অধ্যাপক শিব শংকর কারুয়া, নারী উদ্যোক্তা আইরীন পারভীন। অন্যান্যের মাঝে আরও বক্তব্য রাখেন কমিউনিস্ট পার্টির সদর সভাপতি সোলায়মান আহমেদ, আইইডি’র ব্যবস্থাপক মানিক পাল, চলচ্চিত্র প্রয়োজক-পরিবেশক শীষ মনোয়ার, শিক্ষক নেতা মুহাম্মদ মুহসীন আলী আকন্দ, সাংবাদিক ইমরান হাসান রাব্বী, তিথী নন্দী, ইমামুল হাসান তানভীর, হরিজন নেত্রী মুক্তা হরিজন, তৃতীয় লিঙ্গের হিজড়া নিশি সরকার প্রমুখ।
বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, দেশের মানুষ ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল পেয়ে স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে হাঁটছে। শিক্ষা ও প্রযুক্তি এখন একে অপরের পরিপূরক হয়ে গেছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহারে মানুষ যখন অভ্যস্ত হতে চলেছে, সেই মুহুর্তে ইন্টারনেটের গতি কমে যাওয়া, কম ব্যান্ডইউথ ও ইনটারনেটের অধিক মুল্যের কারণে নানাভাবে দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে। যা সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ ও রূপকল্প-২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নের পথে বড় বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছেন। এজন্য অবিলম্বে তারা মননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধি, ব্যান্ডউইথ বাড়ানো এবং সকল ধরনের ইন্টারনেট পরিষেবার মূল্য কমানোর দাবি জানান।
জনউদ্যোগ শেরপুর কমিটির সদস্য সচিব হাকিম বাবুল জানান, এদিন প্রায় ২ হাজার গণস্বাক্ষর সংগৃহিত হয়েছে। মঙ্গলবার এসব গণস্বাক্ষর সহ প্রধানমন্ত্রী বরাবরে লিখিত ৩ দফা দাবিনামা সম্বলিত স্মারকলিপি জেলা প্রশাসকের নিকট হস্তান্তর করা হবে। তিনি গণস্বাক্ষর কমসূচির সহভাগী তরুণ শিক্ষার্থীদের সংগঠন আবির্ভাব এবং বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা আইইডি’র (ইনস্টিটিউট ফর এনভায়রনমেন্ট এন্ড ডেভেলপমেন্ট)সহ অংশগ্রহণকারী সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com