সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
“কল্যাণের যত কিছু আছে দিতে প্রস্তুত, কোন অনিয়ম অপেশাদারিত্ব বরদাস্ত করা হবে না। “__বিএমপি কমিশনার ।

“কল্যাণের যত কিছু আছে দিতে প্রস্তুত, কোন অনিয়ম অপেশাদারিত্ব বরদাস্ত করা হবে না। “__বিএমপি কমিশনার ।

শাহীন ইসলাম বরিশাল জেলা প্রতিনিধিঃ
২৪ আগষ্ট ২০২০ খ্রিঃ মাননীয় বিএমপি কমিশনার জনাব মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম-বার মহোদয়ের সভাপতিত্বে পুলিশ লাইন্স বরিশালে মাসিক কল্যাণ সভায় এ কথা বলেন ।

তিনি বলেন , এই করোনার সময়ে কর্তব্য পালন করার পাশাপাশি মানবিক গুণাবলী নিয়ে জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে আমাদের সত্যিকারের হিউম্যান ফেসগুলো আরও বেশি ফুটিয়ে তুলতে সক্ষম হয়েছি, তবে এখনও যদি কোথাও কোন দুষ্ট আত্মা ঘোরাফেরা করে, তাদের জন্য কঠোর হুঁশিয়ারি। বিএমপি অভিভাবক আরও বলেন , সীমার মধ্যে থেকে আইন প্রয়োগ করে অপরাধ দমন করতে হবে। অপেশাদার সুলভ আচরণ করা চলবে না।

যেই জনগণের টাকায় আমরা বেতন রেশন সহ সকল সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছি সেই জনগণের প্রতি মানবিক ও প্রকৃত সেবা মূলক আচরণ করা হচ্ছে কি-না তা সেবা প্রত্যাশীদের ফোন করে নিয়মিত যাচাই করা হচ্ছে। কেউ যদি অপেশাদার, শৃঙ্খলা পরিপন্থি বদনাম ডেকে আনার চেষ্টা করে, তাকে বিন্দু মাত্র ছাড় দেয়া হবে না।

ছোট ছোট ছাড় দিতে দিতে অনেক বড় খেসারত দিতে হয়, কোনো ছাড় নয় এটাই ফাস্ট এটাই লাস্ট। তাই জনমুখী সেবা হচ্ছে কিনা জনগণ সেবা পাচ্ছে কিনা দায়িত্বরত কোন অফিসার অন্য উদ্দেশ্য নিয়ে সেবা প্রত্যাশীদের সাথে ইচ্ছাকৃতভাবে খারাপ আচরণ করছে কিনা তা নিয়মিত খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জনগণের সাথে খারাপ আচরণ এর মত গর্হিত কাজ এর বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

থানা আমাদের মূল সেবা কেন্দ্র কেউ যেন সেবা প্রত্যাশীর বিড়ম্বনা বা চোখের পানির কারণ না হয়। আমরা স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি মেনে আগের মতই বিট পুলিশিং, ওপেন হাউজ ডে, কমিউনিটি পুলিশিং এর মাধ্যমে জনগণের সাহায্য-সহযোগিতা নিয়ে আভিযানিক কার্যক্রম আরো শক্তিশালী করে একটি নিরাপদ বরিশাল গড়ে তুলব। একই সাথে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি উন্নত সমৃদ্ধ রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বের দরবারে উপহার দিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন ,তা বাস্তবায়নে সবাই সত্যিকার অর্থে আন্তরিক হয়ে কাজ করবো ইনশাআল্লাহ।

অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর-দপ্তর) জনাব রুনা লায়লার উপস্থাপনায় উক্ত কল্যাণ সভায় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বিএমপি জনাব প্রলয় চিসিম, উপ-পুলিশ কমিশনার ক্রাইম অপারেশন এন্ড প্রসিকিউশন বিএমপি জনাব মোঃ জুলফিকার আলি হায়দার, উপ-পুলিশ কমিশনার সদর দপ্তর জনাব আবু রায়হান মুহাম্মদ সালেহ্, উপ-পুলিশ কমিশনার নগর বিশেষ শাখা বিএমপি জনাব জাহাঙ্গীর হোসেন মল্লিক, উপ পুলিশ কমিশনার ট্রাফিক বিএমপি জনাব মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার পিপিএম ,উপ-পুলিশ কমিশনার দক্ষিণ জনাব মোঃ মোকতার হোসেন পিপিএম-সেবা , উপ-পুলিশ কমিশনার সাপ্লাই এন্ড লজিস্টিকস বিএমপি জনাব খাঁন মুহাম্মদ আবু নাসের ,উপ-পুলিশ কমিশনার উত্তর জনাব মোঃ খাইরুল আলম , উপ-পুলিশ কমিশনার ডিবি জনাব মোঃ মনজুর রহমান পিপিএম-বার সহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com