সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
আক্কেলপুরে ডোবায় কিশোরের লাশ উদ্ধার।

আক্কেলপুরে ডোবায় কিশোরের লাশ উদ্ধার।

এস আর রনি, জয়পুরহাট। 

আজ ১১ই নভেম্বর রোজ বুধবার সকালে আক্কেলপুর মহিলা কলেজের ২০০ মিঃ উত্তর-পূর্বে কেচের মোড় সংলগ্ন এলাকায় রেললাইনের পার্শ্বে নর্দমায় এক কিশোরের লাশ বস্তা বন্দী অবস্থায় দেখতে পায় স্থানীয় এলাকাবাসী।

পরে স্থানীয়রা নিকটতম আক্কেলপুর থানায় খবর দিলে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করেন। এবং যুবকটির নামঃ মোঃ নাজমুল হোসেন(১৫)। পিতাঃ মোঃ আলামিন হোসেন । গ্রামঃ পূর্ব খাদাইল, উপজেলা- বদলগাছী, জেলা নওগাঁ। 

স্থানীয়রা জানান যে, গত ৬ই নভেম্বর রোজ শুক্রবার নাজমুল হোসেন নিখোঁজ হন। কিশোরটি খাদাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র। নিখোঁজ হওয়ার পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করার পরে ও কিশোর নাজমুল হোসেন কে পাওয়া যায় না।

তারপর ৭ই নভেম্বর রোজ শনিবার অপরিচিত কিছু নাম্বার থেকে ফোন দিয়ে অপহরণ কারীরা বলেন যে, তারা কিশোর নাজমুল হোসেন কে অপহরণ করেছেন এবং ১৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। 

অবশেষে নিরীহ পিতা মোঃ আলামিন হোসেন টাকা জোগাড় করতে না পেরে ৮ই নভেম্বর রবিবার বদলগাছী থানা অপহরণ মামলা দায়ের করেন। 

অপহরণকারীরা মুক্তিপণ না পেয়ে কিশোরটিকে হত্যা করে লাশ বস্তাবন্দী করে ফেলিয়ে যায়। এমনটি মন্তব্য করছেন আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আব্দুল লতিফ খান।

বাবার কাঁধে সন্তানের লাশ পৃথিবীর সবচেয়ে ভারী বস্তু শোকের ছায়া ঘনীভূত হয়েছে তার পরিবার ও গ্রামবাসীর মধ্যে।  এমন নির্মম ভাবে   তার পরিবার জানান যে,  এর সুষ্ঠ তদন্ত করে অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হক।

বদলগাছী থানায় কথা বললে তদন্ত কর্মকর্তা এস আই আজিজ জানান যে, কিশোর নাজমুল হোসেন ৬ই নভেম্বর নিখোঁজ হন এবং ৭ই নভেম্বর অপহরণ কারীরা তার বাবা মোঃ আলামিন হোসেন কে ফোন দিয়ে মুক্তিপণ দাবি করলে ৮ই নভেম্বর রবিবার বদলগাছী থানায় অপহরণের মামলা দায়ের করেন। এবং অজ্ঞাতনামা চার জনকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদের পর তাদের জেলে প্রেরণ করা হয়। তাছাড়া ও অনুসন্ধান ও মামলা অব্যাহত রয়েছে।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com