সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
লুকাকুর জোড়া গোলে দারুণ বেলজিয়ামের জয়

লুকাকুর জোড়া গোলে দারুণ বেলজিয়ামের জয়

গোল করার পর সতীর্থদের সঙ্গে রোমেলু লুকাকু।

স্পোর্টস ডেস্কঃ

ডেনমার্ক কে হারিয়ে উয়েফা নেশন্স লিগের ফাইনালসে উঠল বেলজিয়াম। চার দলের শিরোপা লড়াইয়ে জায়গা করে নেওয়ার লক্ষ্যে প্রথমার্ধে বেশ ভালোই লড়েছিল ডেনমার্ক, তবে বিরতির পর আর পেরে উঠল না তারা। রোমেলু লুকাকুর জোড়া গোলে দারুণ জয় পেল বেলজিয়াম।

লুভেনের কিং পাওয়ার স্টেডিয়ামে বুধবার রাতে ‘এ’ লিগের ২ নম্বর গ্রুপের শেষ রাউন্ডের ম্যাচে ৪-২ গোলে জিতেছে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দলটি।

তিয়েলেমান্সের গোলে স্বাগতিকরা এগিয়ে যাওয়ার পর সমতা টানেন উয়োনাস উইন্ড। দ্বিতীয়ার্ধে লুকাকুর জোড়া গোলের পর কেভিন ডি ব্রুইনের লক্ষ্যভেদে সহজ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বেলজিয়াম।

সেপ্টেম্বরে ডেনমার্কের মাঠে ২-০ গোলে জিতে আসর শুরু করেছিল বেলজিয়াম। আগামী বছরের অক্টোবরে অনুষ্ঠেয় শিরোপা লড়াইয়ের অন্য তিন দল হলো-ইতালি, ফ্রান্স ও স্পেন।

তিন দিন আগে ইংল্যান্ডকে হারানো বেলজিয়াম ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে যায়। তৃতীয় মিনিটে ডেনমার্ক নিজেদের ডি-বক্সের বাইরে বল ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হলে ফাঁকায় পেয়ে নিচু শটে ঠিকানা খুঁজে নেন তিয়েলেমান্স।

পাল্টা জবাব দিতে দেরি করেনি সফরকারীরা। সপ্তদশ মিনিটে ডি-বক্সে ডান দিক থেকে বার্সেলোনার মার্টিন ব্রাথওয়েটের শটে বল প্রতিপক্ষের একজনের পায়ে লেগে উঁচু হয়ে যায় উইন্ডের কাছে। লাফিয়ে হেডে সমতা টানেন এই তরুণ ফরোয়ার্ড।

গোল পেয়ে আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠা ডেনমার্ক পরের কয়েক মিনিটে বেশ কিছু ভালো আক্রমণ করে। ২৪তম মিনিটে ব্রাথওয়েটের শট এগিয়ে গিয়ে ঠেকিয়ে দেন বেলজিয়াম গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়া। ছয় মিনিট পর লুকাকুর হেড পোস্টের একটু দূর দিয়ে বেরিয়ে গেলে বেঁচে যায় ডেনমার্কও।

দ্বিতীয়ার্ধে অল্প সময়ের ব্যবধানে লুকাকু দুবার জালে বল পাঠালে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ পেয়ে যায় বেলজিয়াম। ৫৭তম মিনিটে ডি ব্রুইনের থ্রু বলে ডান পায়ের শটে ফের দলকে এগিয়ে নেন লুকাকু। আর ৬৯তম মিনিটে হেডে ব্যবধান বাড়ান ইন্টার মিলান স্ট্রাইকার।

৮১তম মিনিটে বাইসাইকেল কিকে ব্যবধান কমানোর চেষ্টা করেন ব্রাথওয়েট; তবে কোর্তোয়াকে পরাস্ত করতে পারেননি তিনি। পাঁচ মিনিট পর রিয়াল মাদ্রিদের এই গোলরক্ষকের ভুলেই ব্যবধান কমে। বাঁ দিক থেকে সতীর্থের ব্যাকপাস অনায়াসে রিসিভ করতে পারতেন কোর্তোয়া; কিন্তু অবিশ্বাস্যভাবে তার পায়ের নিচ দিয়ে বল গড়িয়ে গোললাইন পেরিয়ে যায়।

এতে শেষের রোমাঞ্চের সম্ভাবনা জাগলেও তার স্থায়ীত্ব হয় মিনিট খানেক। ব্যবধান কমার এক মিনিট পর প্রথম আক্রমণেই জালের দেখা পান ডি ব্রুইনে। প্রথম ছোঁয়ায় উঁচু শটে দূরের পোস্ট দিয়ে গোলটি করেন ম্যানচেস্টার সিটি মিডফিল্ডার।
ছয় ম্যাচে পাঁচ জয়ে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করল বেলজিয়াম।

আরেক ম্যাচে আইসল্যান্ডকে ৪-০ গোলে হারানো ইংল্যান্ড ও ডেনমার্কের পয়েন্ট সমান ১০। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে দুইয়ে ডেনমার্ক। খালি হাতে আসর শেষ করা আইসল্যান্ড নেমে গেছে ‘বি’ লিগে।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com