সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
শেরপুরে ৭ মাসের শিশুকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগ মানসিক ভারসাম্যহীন মায়ের বিরুদ্ধে

শেরপুরে ৭ মাসের শিশুকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগ মানসিক ভারসাম্যহীন মায়ের বিরুদ্ধে

মো. জাকারিয়া খান জাহিদ, স্টাফ রিপোর্টার : শেরপুরে আরাফাত তাসিন নামে ৭ মাস বয়সী এক শিশুকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে নুরুন্নাহার বেগম নামে এক নারীর বিরুদ্ধে। ২ ডিসেম্বর (বুধবার) সকালে শহরের নওহাটা এলাকায় বাড়ির পাশে একটি পুকুর থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ঘটনায় শিশুর মা পলাতক রয়েছে। খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শেরপুর শহরের নওহাটা এলাকার বাসিন্দা ও রড-সিমেন্ট ব্যবসায়ী আবু সামা ও নুরুন্নাহার দম্পতির ৪ ছেলে-মেয়ে। এদের মধ্যে গত ৭ মাস আগে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে আরাফাত তাসিন জন্ম নেয়। তাসিনের জন্মের পর থেকেই মা নুরুন্নাহার অসুস্থ হয়ে পড়ে ও অস্বাভাবিক আচরণ শুরু করে। শিশু তাসিনকে তার মা সহ্য করতে না পারায় সে তার ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া বড়বোন শ্রাবণী ও স্কুলপড়ুয়া বোন লাবণীর কাছে বড় হতে থাকে। এদিকে বুধবার সকালে মা নুরুন্নাহার ও শিশু তাসিনকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে পুকুরে তাসিনের লাশ পুকুরে ভাসতে দেখে স্বজনরা। ঘটনার পর থেকে মা নুরুন্নাহারকেও খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। পরে খবর পেয়ে শিশু তাসিনের লাশ উদ্ধার করে শেরপুর সদর থানার পুলিশ। ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। স্বজনরা জানায়, তাসিনের জন্মের পর থেকেই মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে নুরুন্নাহার। প্রায়সময়ই সে অপ্রকৃতস্থের মতো আচরণ করতো।
এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন।

সংবাদটি প্রচার করুন




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com