সদ্য প্রাপ্ত
দে‌শের প্রতি‌টি জেলা উপ‌জেলায় সংবাদকর্মী নি‌য়োগ দেওয়া হ‌বে। আগ্রহিরা যোগা‌যোগ করুনঃ ০১৯২০৫৩৩৩৩৯
শিরোনামঃ
ঈশ্বরগঞ্জে দুই জনের কারাদন্ড
ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ
কুমারী মেয়ের বিয়ে ভাঙ্গতে গিয়ে জুতাপেটা খেলে আলোচিত কাদির বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ গাজীপুর জেলা শাখার নতুন কমিটি গঠন “আসুন সবুজ বাংলাদেশ গড়ি” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারা বাংলাদেশের ৬৪ জেলায় গাছ লাগানোর এক অদম্য কর্মসূচি শুরু করেছেন ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার-সিলেট জেলার কো-অর্ডিনেটর মুমিনুল হক ফাহিম। উক্ত সামাজিক কর্মসূচির নাম দিয়েছেন “Planting Trees in 64 Districts of Bangladesh”। ডিবি (উত্তর), টাঙ্গাইল কর্তৃক ৭৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ভূঞাপুর থানা মাদ্রাসা ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করল । গাজীপুর শ্রীপুরে প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তির বিষয়ে অনুসন্ধান করতে গিয়ে সাংবাদিক ও ছাত্রলীগ সভাপতি আটক। মাস্ক পরিধান ও সাস্থ্যবিধি পরিপালনে সেচ্ছা অঙ্গিকার অভিযান শ্রীপুরে স্ত্রীর লালসার স্বীকার হয়ে নিঃস্ব স্বামী নবীনগরে পরকীয়ার জেরে তিন সন্তানের জননী প্রবাসীর স্ত্রী উধাও
শ্রীপুরে স্ত্রীর লালসার স্বীকার হয়ে নিঃস্ব স্বামী

শ্রীপুরে স্ত্রীর লালসার স্বীকার হয়ে নিঃস্ব স্বামী

গাজীপুর প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরের শ্রীপুরের কেওয়া পূর্বখন্ড গ্রামে স্ত্রীর লালসার স্বীকার হয়ে নিঃস্ব স্বামী। এ বিষয়ে গাজীপুর ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে মামলা দায়ের করেন স্বামী আফির বেপারী।
মামলার এজহার সুত্রে জানা যায়, ২৮ বছর পূর্বে ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার সীডষ্টোর বাজার এলাকার জাতীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা হরমুজ আলী খান এর মেয়ে লিপি আক্তারকে ইসলামি শরীয়ত মোতাবেক তের ভরি স্বর্ণ দেনমোহর দিয়ে বিয়ে করেন।তারপর থেকেই শান্তিপূর্ণ ভাবে সংসার করে আসছিলেন তারা।তাদের দীর্ঘদিনের সংসার জীবনে মোঃ হিমেল বেপারী ২১ নামে একজন পুত্র সন্তান আছে।

গত ২২ শে জানুয়ারী ২০২০ ইং তারিখ শুক্রবার ভোরে ঘরে থাকা দেনমোহরের ১৩ ভরি স্বর্ণ, নগদ দুই লক্ষ টাকা, দুইটি রাম ছাগল ও আসবাবপত্র নিয়ে পাড়ি জমান পিতার বাড়ি ভালুকা উপজেলার সীডষ্টোর বাজার।
এঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আপিল বেপারীর বাড়ির ভাড়াটিয়া জানান, ভাই ভাবি ভালোই চলচিল,হঠাৎ তাদের মধ্যে কি হইছে জানি না। সকালে ঘুম থেকে ওঠে দেখি ভাবি ট্রাক ভরে জিনিস নিয়ে গেছে।


এ ঘটনার আরেকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান সকালে ঘুম থেকে ওঠে দেখি ভাবি ট্রাক ভরে ঘরের আসবাবপত্র,ছাগল, হাঁস,মুরগী নিয়ে চলে গেছে। কেন বা কি কারণে চলে গেছেন তা জানি না। আপিল ভাই ঘুম থেকে ওঠার পর ভাবি কে খোঁজাখুঁজি করার পর বুঝতে পারলাম ভাবি ঝগড়া চলে গেছেন।
এ বিষয়ে আফির বেপারী কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,দীর্ঘ ৩০ বছর পূর্বে আমার শশুর হরমুজ আলী খান মাওনা এলাকায় থেকে হকারী করত। ২৮ বছর পূর্বে তার মেয়ে লিপি আক্তারের সাথে বিয়ে হয়।তারপর আমার শশুর ভালুকা উপজেলার সীডষ্টোর বাজার এলাকায় চলে যান।সেখানে সে চায়ের দোকান করেন।আমাদের সংসার জীবন খুব সুখময় ছিল।আমাদের দাম্পত্য জীবনে কোন ঝামেলা ছিলো না।আমরা স্বামী স্ত্রী মিলে হজ্জ করে আসছি। গত ২০১৭ সালে ওয়ান এক্সিম ব্যাংক থেকে যৌথ একাউন্ট করে ৯০ লক্ষ টাকা লোন করি। লোনের ৪৫ লক্ষ টাকা নিয়ে আমার শশুর বাড়ি সীডষ্টোর বাজার এলাকায় ৫ তলা ভবণ নির্মাণের কাজ শুরু করে ২ তলা সম্পূর্ণ করেন। দীর্ঘ ১ বছর দুইজনে মিলে ব্যাংকের কিস্তি চালাই।তারপর থেকে আমার স্ত্রী কিস্তি দিতে চায় না। এটা নিয়ে একটু কথা কাটাকাটি হয়। আমি শশুর বাড়ি বেড়াতে গেলে আমাকে রাতে আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোড় পূর্বক ১০০ টাকা মুল্যের ১০/১২ পাতা নন জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে নেয়। আমি পরে আমার কৌশলে আমার স্ত্রীকে আমার বাড়িতে নিয়ে আসি। আমার বাড়ি থেকে চলে যাওয়ার পূর্বের রাতে কিস্তি এবং আমার স্বাক্ষর করা স্ট্যাম্পের জন্য তাকে চাপ প্রয়োগ করি। এ নিয়ে দুইজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।পরে আমি ঘুমিয়ে যাই।সকালে ঘুম থেকে ওঠে ঘরের জিনিসপত্র এলোমেলো দেখে আমার স্ত্রী কে খোঁজাখুঁজি করি। আমি আশেপাশের লোকের মাধ্যে জানতে পারি জিনিস নিয়ে সে চলে গেছে। পরে আমি এবিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করি। তিনি আরও বলেন এবিষয়ে গাজীপুর ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে মামলা চলমান আছে। আপিল বেপারী আরও বলেন সব মিলিয়ে সে আমার প্রায় দেড় কোটি নিয়ে যায়। আমি প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠ বিচার চাই।

এ বিষয়ে লিপি আক্তার বলেন, আফির বেপারী তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করেছেন তা মিথ্যা বানোয়াট।আমি তার বাড়ি থেকে কোন টাকা পয়সা,স্বর্ণ বা কোন আসবাবপত্র আনি নাই।
এ বিষয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা হরমুজ আলী খান বলেন,আফির বেপারীর যে অভিযোগ করেছে তা মিথ্যা।আমি তাদের দুজনকে মিলানোর জন্য চেষ্টা করছি।কিন্তু বেপারী কোন ভাবেই মিলতে চাচ্ছে না।আমি এ বিষয়ে শ্রীপুর মাডেল থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি।

সংবাদটি প্রচার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2020 Daily Provat Barta
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com